মাথা গরম হওয়ার কারণ ও প্রতিকার - মাথা ঠান্ডা রাখার ঔষধের নাম

অনেকের অত্যাধিক মাথা গরম থাকে তাই আজকের আর্টিকেল এর মাধ্যমে আপনাদের জানানোর চেষ্টা করব মাথা গরম হওয়ার কারণ ও প্রতিকার এগুলো সম্পর্কে। মাথা গরম হয়ে গেলে বিভিন্ন রকম সমস্যা সৃষ্টি হয় তাই অবশ্যই আপনাদের মাথা গরম হওয়ার কারণ ও প্রতিকার সম্পর্কে জানতে হবে।
মাথা গরম হওয়ার কারণ ও প্রতিকার

তাহলে চলুন নিচের অংশগুলো থেকে বিস্তারিত ভাবে জেনে নেওয়া যাক মাথা গরম হওয়ার কারণ ও প্রতিকার সহ এই সম্পর্কিত আরো বেশ কিছু বিষয়ে। 

পোস্ট সূচিপত্রঃ মাথা গরম হওয়ার কারণ ও প্রতিকার

মাথা গরম হওয়ার কারণ ও প্রতিকার

অনেকের হুটহাট মাথা গরম হয়ে যায় এজন্য সবার সাথে খারাপ ব্যবহার করে ফেলে। তাই আজকে আপনাদের জানাবো মাথা গরম হওয়ার কারণ ও প্রতিকার সম্পর্কে। তাহলে জেনে নিন মাথা গরম হওয়ার কারণ ও প্রতিকার গুলো সম্পর্কে। 

  • ধৈর্য কম হওয়ার কারণে
  • অতিরিক্ত রাগের কারণে
  • শরীরের তাপমাত্রা পরিবর্তনের কারণে
  • অতিরিক্ত রোদে চলাফেরা করলে
  • অতিরিক্ত কাজের চাপে
  • গরমে মাথার চুল বেশি বড় রাখলে
  • অতিরিক্ত মানসিক দুশ্চিন্তায় থাকলে
  • নিয়মিত রাত জাগার কারণে
  • অতিরিক্ত মোবাইল বা কম্পিউটার ব্যবহার

ধৈর্য কম হওয়ার কারণে

আমাদের সমাজে অনেক মানুষ রয়েছে যাদের ধৈর্য অনেক কম সেজন্য কোন কাজ করতে গিয়ে বা কেউ যদি তার কথা না শুনতে চাই তাহলে ধৈর্য হারিয়ে ফেলে এবং ধৈর্য হারিয়ে গেলে মাথা গরম করে ফেলে। আর এই ধৈর্য কম মাথা গরম হওয়ার অন্যতম একটি কারণ। 

অতিরিক্ত রাগের কারণে

কিছু মানুষ রয়েছে যাদের অনেক বেশি রাগ। এই অতিরিক্ত করা রাগের কারণে তারা সব সময় মাথা গরম করে থাকে। তাই বলা যায় অতিরিক্ত রাগ মাথায় গরম হওয়ার অন্যতম আরো একটি কারণ। যদি অতিরিক্ত রাগ কমাতে পারেন তাহলে আপনার মাথা গরম হবে না। 

শরীরের তাপমাত্রা পরিবর্তনের কারণে

অনেক সময় বিভিন্ন কারণে শরীরের তাপমাত্রা পরিবর্তন হয়ে যায় এবং এই শরীরের তাপমাত্রা পরিবর্তন হওয়ার কারণে মাথা প্রচন্ড গরম হয়ে যায়। তাই আপনার যদি এই কারণে মাথা গরম হয় তাহলে মাথা ঠান্ডা করার ব্যবস্থা করবেন। 

অতিরিক্ত রোদে চলাফেরা করলে

প্রতিদিন আমাদের বিভিন্ন কাজের জন্য বাহিরে চলাফেরা করার প্রয়োজন হয় বিশেষ করে যখন গ্রীষ্মকাল থাকে তখন বাইরে অনেক রোদ হয় এবং রোদের অনেক তাপ থাকে। সেজন্য আপনি যদি অতিরিক্ত রোদে থাকেন তাহলে আপনার মাথা প্রচন্ড গরম হবে। সেজন্য মাথা গরম হওয়া থেকে মুক্তি পেতে রোধে কম থাকবেন এবং রোদে গেলে ছাতা নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করবেন। 

আরো পড়ুন: বুক ধড়ফড় করার ৮ টি কারন ও করণীয় দেখে নিন

অতিরিক্ত কাজের চাপে

জীবন জীবিকার তাগিদে প্রতিদিন আমাদের বিভিন্ন রকম কাজ করতে হয়। কিন্তু কাজের চাপ যখন কম থাকে তখন তেমন কোন সমস্যা হয় না আর যখন কাজের চাপ অতিরিক্ত বেশি হয়ে যায় তখন সেই অতিরিক্ত কাজের চাপে মাথা গরম হয়ে যায়। তাই সব সময় চেষ্টা করবেন কাজের চাপ কম রাখা এবং প্রতিদিনের কাজ প্রতিদিন করে ফেলা। অর্থাৎ কাজ অতিরিক্ত জমা করে না রাখা। 

গরমে মাথার চুল বেশি বড় রাখলে

আমাদের অনেক অভ্যাস রয়েছে মাথার চুল অনেক বড় রাখা। সেটা যদি আপনি শীতকালে রাখেন তাহলে তেমন কোন সমস্যা হবে না কিন্তু আপনি যদি গরমের সময় মাথার চুল অনেক বড় বড় রাখেন তাহলে আপনার মাথার মধ্যে অনেক তাপ উৎপন্ন হবে এবং সেগুলো না বের হতে পারলে মাথা গরম হয়ে যাবে। তাই মাথা গরম থেকে প্রতিকার খেতে গরমের সময় চুল ছোট ছোট রাখার চেষ্টা করবেন।

অতিরিক্ত মানসিক দুশ্চিন্তায় থাকলে

অনেকে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন রকম মানসিক দুশ্চিন্তার মধ্যে থাকেন। আমরা যেহেতু মানুষ তাই আমাদের অবশ্যই দুঃশ্চিন্তা থাকবে তবে অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা করলে আপনার মাথা গরম হয়ে যাবে এবং এটা আপনার জন্য অনেক ক্ষতিকর হবে তাই সব সময় চেষ্টা করবেন দুশ্চিন্তা মুক্ত থাকার। 

নিয়মিত রাত জাগার কারণে

বর্তমানে ছেলে মেয়েদের প্রতিনিয়ত রাত জাগার অভ্যাস আছে এর কারণ হলো মোবাইল ফোন।আপনি যদি অতিরিক্ত রাত জাগেন এবং এটা নিয়মিত হতে থাকে অর্থাৎ যদি প্রতিদিনের ঘুম ঠিক মত না হয় তাহলে শরীরে বিভিন্ন রকম খারাপ লক্ষণ দেখা দিবে তার মধ্যে একটি হল হুটহাট মাথা গরম হয়ে যাওয়া। তাই প্রতিদিন কমপক্ষে ৭ থেকে৮ ঘন্টা ঘুমানোর চেষ্টা করবেন। যদি পর্যাপ্ত ঘুম হয় তাহলে এই সমস্যা থাকবে না। 

অতিরিক্ত মোবাইল বা কম্পিউটার ব্যবহার

বর্তমানে বেশিরভাগ ছেলে মেয়েরা অতিরিক্ত মোবাইল এবং কম্পিউটার ব্যবহারে আসক্ত। আর এই অতিরিক্ত মোবাইল আর কম্পিউটার ব্যবহার করার কারণে মোবাইল বা কম্পিউটারের স্কিন থেকে যে আলো লাগে এটা চোখের জন্য এবং মাথার জন্য অনেক ক্ষতিকর এতে করে চোখের ক্ষতি হয় এবং মাথা গরম হয়ে যাওয়ার মত সমস্যা হয়। তাই মাথা গরম থাকে প্রতিকার পেতে এই অভ্যাস কমানোর চেষ্টা করুন। 

মাথা গরম হলে ঠান্ডা করার উপায়

বিভিন্ন কারণে আমাদের মাথা গরম হয়ে থাকে অতিরিক্ত মাথা গরম করার কারণে বিভিন্ন রকম ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে তাই অবশ্যই আপনার জেনে রাখা উচিত মাথা গরম হলে ঠান্ডা করার উপায়। তাহলে জেনে রাখুন মাথা গরম হলে কিভাবে ঠান্ডা করবেন। 

১। যদি কোন ব্যক্তির কারণে আপনার মাথা গরম হয়ে থাকে অর্থাৎ রাগ হয়ে থাকে তাহলে মাথা ঠান্ডা করার জন্য সেই ব্যক্তিকে এড়িয়ে চলুন। এবং সেই স্থান থেকে সরে গিয়ে একটু হাটাহাটি করুন।

২। আপনি যদি প্রতিনিয়ত আপনার অতীতের কোন ঘটনা নিয়ে চিন্তা করেন তাহলে আপনার মাথা গরম হতে পারে সেজন্য অতীতের কোন চিন্তা আসলে এবং মাথা গরম হলে কানে হেডফোন লাগিয়ে গান শোনার চেষ্টা করুন। 

মাথা গরম হলে ঠান্ডা করার উপায়

৩। অনেক সময় আমাদের একে অপরের সাথে তর্ক বিতর্ক হয় সেই সময় অনেকেই শুধুমাত্র মনোযোগ দিয়ে থাকি বা ধ্যান দিয়ে থাকে অপরজন কি বলছে কিন্তু নিজে কি বলছে সেটা ভাবে না তাই অতিরিক্ত আবেগ না দেখিয়ে নিজেকে একটু সংযত করার চেষ্টা করুন। তাহলে দেখবেন মাথা গরম হবে না। 

আরো পড়ুন: কি খেলে মাথা ঘোরা কমবে - মাথা ঘোরার ঔষধের নাম

৪। যদি অতিরিক্ত তাপমাত্রার কারণে মাথা গরম হয় তাহলে মাথায় ঠান্ডা পানি দিন এবং অতিরিক্ত রোদে ঘোরাফেরা করা থেকে কিছুটা বিরত থাকুন আর যদি কোন কাজের জন্য রোদে দিতে হয় তাহলে মাথায় যাতে রোদ না লাগে সেই ব্যবস্থা করুন। 

৫। অনেক সময় অতিরিক্ত কাজের চাপে মাথা গরম হয়ে যায় সেজন্য অতিরিক্ত কাজের চাপ না নিয়ে মাঝে মাঝে প্রিয় কোন মানুষের সাথে কথা বলার চেষ্টা করুন। তাহলে দেখবেন চাপ অনেকটা কমবে এবং মাথা গরম কম হবে। 

৬। মাথার চুল অতিরিক্ত বড় হয়ে যাওয়ার কারণে মাথার মধ্যে অনেক গরম ধরে আর সেই কারণে মাথা ঘেমে গিয়ে মাথা গরম হয়ে যায়। তাই মাথা ঠান্ডা রাখার জন্য চুল ছোট রাখুন এবং ঠান্ডা তেল ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া অন্য কোনো কারণে যদি আপনার মাথা গরম হয়ে থাকে তাহলে কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন। 

বাচ্চাদের মাথা গরম থাকে কেন

বড়দের মাথা গরম হলে তা তারা বিভিন্ন উপায়ে ভালো করতে পারে কিন্তু ছোট বাচ্চাদের মাথা গরম হলে সেটা একটু বেশি সমস্যা। তবে চিন্তার কোন কারণ নেই বাচ্চাদের মাথা গরম থাকে কেন এই বিষয়টা যদি জেনে থাকেন তাহলে বুঝতে পারবেন বাচ্চাদের মাথা ঠান্ডা করার উপায়। বাচ্চাদের মাথা গরম থাকার কারণগুলো হলোঃ

  • গরম কোন খাবার খাওয়ালে
  • গরম জামা বা টুপি পরিয়ে রাখলে
  • অতিরিক্ত গরমে মায়ের বুকের দুধ পান করলে সেই কারণে কিছুটা মাথা গরম হতে পারে
  • যদি কোনো কারণে অতিরিক্ত উত্তেজিত হয় তাহলে মাথা গরম হয়
  • ঘরের তাপমাত্রা যদি বেশি থাকে তাহলেও বাচ্চাদের মাথা গরম হতে পারে
  • বাচ্চাদের দাঁত উঠার কারণে মাথা গরম হয়ে থাকে
এগুলো কারণেই মূলত বাচ্চাদের মাথা গরম হয়ে থাকে। যদি দেখেন আপনার বাচ্চার মাথা গরম হচ্ছে তাহলে মাথা ঠাণ্ডা রাখার চেষ্টা করবেন। এবং যেগুলো কারণে মাথা গরম হচ্ছে সেগুলো সমাধান বা এড়িয়ে চলার চেষ্টা করবেন। 

মাথা ঠান্ডা রাখার ঔষধের নাম

মাথা ঠান্ডা রাখার জন্য বেশ কয়েকটি ঔষধ রয়েছে যেগুলো সেবন করলে মাথা ঠান্ডা থাকে। তবে ঔষধ সেবন না করে প্রাকৃতিক কোন উপায়ে মাথা ঠান্ডা রাখা ভালো। তারপরেও জেনে রাখুন মাথা ঠান্ডা রাখার ঔষধের নাম গুলো। 

  • Melixol Tablet
  • Agenta Tablet
  • Frenxit Tablet
  • Leanxit Tablet
  • Reelife Tablet
  • Anfree Tablet
  • Tenil 3 mg Tablet
  • Rivotril 0.5 mg Tablet
  • Disopen 1 Tablet

মাথা ঠান্ডা রাখতে এই সকল ঔষধ ভালো কাজ করে থাকে। সেজন্য আপনার যদি অতিরিক্ত মাথা গরম হয় তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী এই সকল ঔষধ সেবন করতে পারেন। কখনোই চিকিৎসকের পরামর্শ নয় কোন ঔষধ সেবন করবে না। 

মাথার তালু জ্বালা করে কেন

মাথার তালু জ্বালা করার বেশ কিছু কারণ রয়েছে যেমন অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা করা, অতিরিক্ত গরমে এবং রোদের মধ্যে চলাফেরা করা, থাইরয়েডের সমস্যার কারণে অনেক সময় মাথা জ্বালা করে, এছাড়া বিভিন্ন রকম ভিটামিন এর অভাবে যেমন ভিটামিন বি ১ বি ৬ এবং বি ১২ এর অভাবে মাথার তালু জ্বালাপোড়া করে। 

আরো পড়ুন: মাথা ব্যথা কমানোর ১০টি ঔষধের নাম - মাথা ব্যথা কমানোর উপায়

তাই আপনার কোন কারণে মাথার তালু জ্বালাপোড়া করেছে সেটা আগে খুঁজে বের করার চেষ্টা করুন তারপরে সেই সমস্যা সমাধান করার চেষ্টা করুন ইনশাআল্লাহ মাথার তালু জ্বালাপোড়া বন্ধ হয়ে যাবে। যদি ঘরোয়া ভাবে না পারেন তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে পারেন। 

মাথার তালু ঠান্ডা রাখার উপায়

মাথার তালু ঠান্ডা রাখার জন্য যখন বাইরে যাবেন তখন মাথায় টুপি পরতে পারেন, এছাড়াও আপনার মাথায় যখন অতিরিক্ত চুল থাকবে এবং ঘাম হবে তখন সেগুলো ঘাম বসে গিয়ে মাথার তালু জ্বালাপোড়া করতে পারে তাই মাথাতে ঘাম হলে সেগুলো মুছে ফেলার চেষ্টা করুন। এবং গরমকালে অতিরিক্ত গরমের কারণে মাথার তালু গরম হয়ে থাকে সেজন্য ঠান্ডা কোন তেল ব্যবহার করতে পারেন। 

তবে যাদের ঠান্ডা তেল ব্যবহার করলে সর্দি লেগে যায় তারা ব্যবহার করতে চাইলে হালকা পরিমাণ করে ব্যবহার করবেন। এছাড়া আপনার এই সমস্যা যদি কোনভাবেই ভালো না হয় এবং অনেক দিন ধরে হতে থাকে তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা গ্রহণ করুন। 

মাথা গরম হওয়ার কারণ ও প্রতিকার: শেষ কথা

তো বন্ধুরা আশা করছি আজকের পোস্টটি পড়ে আপনারা জানতে পেরেছেন মাথা গরম হওয়ার কারণ ও প্রতিকার সহ এই সম্পর্কিত আরো বেশ কিছু বিষয়ে। তাই আপনার যদি এরকম সমস্যা হয় তাহলে তা প্রতিকার করতে উপায় গুলো মেনে চলার চেষ্টা করবেন। 

আর এই বিষয়ে যদি আপনাদের আরো কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন। এবং এরকম আরো নতুন নতুন তথ্য পেতে আমাদের JONOPRIYO BLOG ওয়েবসাইট নিয়মিত ভিজিট করতে পারেন। সবাই ভালো থাকবেন ধন্যবাদ। 

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন