লটকন ফলের ১৫ টি উপকারিতা - লটকন ফলের অপকারিতা

আসসালামু আলাইকুম আপনি কি লটকন ফলের ১৫ টি উপকারিতা এবং লটকন ফলের অপকারিতা সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন তাহলে আজকের আর্টিকেলটি আপনার জন্য। আজকের আর্টিকেলে আমরা আলোচনা করব লটকন ফলের ১৫ টি উপকারিতা সহ লটকন ফল সম্পর্কিত আরো অনেক কিছু বিষয়ে। তাই আপনি যদি লটকন ফলের ১৫ টি উপকারিতা সহ এ সকল বিষয়ে জানতে চান তাহলে পুরো আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে শেষ পর্যন্ত পড়ুন।

লটকন ফলের ১৫ টি উপকারিতা

লটকন ফলের ১৫ টি উপকারিতা লটকন কিভাবে খায় লটকন খাওয়ার নিয়ম লটকনের পুষ্টিগুণ ও উপকারিতা লটকন ফলের ইংরেজি নাম কি গর্ভাবস্থায় লটকন খাওয়া যাবে কিনা গর্ভাবস্থায় লটকন খাওয়ার উপকারিতা লটকনের বিচি খেলে কি হয় লটকন ফলের দাম লটকন ফলের অপকারিতা লটকন ফলের ছবি দেখতে কেমন হয় সকল কিছু বিস্তারিত দেখে নিন ও জেনে নিন। 

লটকন ফলের ১৫ টি উপকারিতা

লটকন টক মিষ্টি হলুদ রঙের একটি ফল এই লটকন ফলের মধ্যে রয়েছে অনেক পুষ্টিগুণ। যেমন ভিটামিন সি, ভিটামিন বি, ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম সহ আরো অনেক পুষ্টি উপাদান যা আমাদের শরীরের জন্য অনেক উপকারী এই লটকনের অনেক উপকারিতা রয়েছে কিন্তু আমাদের সেগুলো অজানা। তাই আজকের আর্টিকেলের এই অংশ থেকে লটকন ফলের ১৫ টি উপকারিতা সম্পর্কে জেনে নিন।  

  1. লটকন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে
  2. লটকন মুখের রুচি বৃদ্ধি করে
  3. লটকন দাঁত ও হাড়ের জন্য উপকারী
  4. লটকন মানসিক অবসাদ দূর করে
  5. লটকন চর্মরোগ প্রতিরোধ করে
  6. লটকন ত্বক সুস্থ ও সুন্দর রাখে
  7. লটকন পেটের অসুখ নিরাময় করে
  8. লটকন ভিটামিন বি এর চাহিদা পূরণ করে
  9. লটকন ভিটামিন সি এর চাহিদা পূরণ করে
  10. লটকন দুর্বলতা দূর করে
  11. লটকন হজম শক্তি বৃদ্ধি করে
  12. লটকন ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়
  13. লটকন খাদ্য শক্তির যোগান দেয়
  14. লটকন খনিজের চাহিদা পূরণ করে
  15. লটকন তৃষ্ণা মেটাতে উপকারী

লটকন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে

লটকনের মধ্যে রয়েছে অ্যামাইনো এসিড এবং এনজাইম যা দেহ গঠন করতে সাহায্য করে এবং দেহের কার্যকলাপ ঠিক রাখতে সাহায্য করে। লটকনের মধ্যে রয়েছে অনেক পুষ্টিগুণ এবং খাদ্য শক্তি তাই নিয়মিত লটকন খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।  

আরো পড়ুন: প্রতিদিন কতটুকু কিসমিস খাওয়া উচিত - কিসমিসের ১৬ টি উপকারিতা

লটকন মুখের রুচি বৃদ্ধি করে

লটকন ফলের ১৫ টি উপকারিতার ভেতর আরো একটি উপকারিতা হলো এটা মুখে রুচি বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। তাই যাদের মুখের রুচি অনেক কম কোন খাবার খেতে ভালো লাগে না তারা মুখের রুচি বৃদ্ধি করতে চাইলে লটকন ফল খেতে পারেন। 

লটকন দাঁত ও হাড়ের জন্য উপকারী

লটকন ফলে রয়েছে আয়রন এবং ক্যালসিয়াম যা আমাদের দাঁত এবং হাড়ের জন্য অনেক উপকারী। নিয়মিত লটকন ফল খাওয়ার কারণে এটা আয়রন ও ক্যালসিয়ামের চাহিদা পূরণ করে এতে করে আমাদের দাঁত এবং হাড় মজবুত থাকে বা মজবুত হয়। 

লটকন মানসিক অবসাদ দূর করে

একটি গবেষণায় দেখা গেছে মানসিক অবসাদ দূর করতে লটকন ফল বেশ উপকারী। কেউ যদি নিয়মিত পর্যাপ্ত পরিমাণ করে লটকন ফল খেতে পারে তাহলে মানসিক অবসাদ অনেকটা দূর হয়ে যাবে। তাই আপনি যদি মানসিক অবসাদে থাকেন তাহলে লটকন ফল খেতে পারেন। 

লটকন চর্মরোগ প্রতিরোধ করে

লটকন ফলের ১৫ টি উপকারিতার ভেতর আর একটি উপকারিতা হলো এটা চর্ম রোগ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। অনেক সময় বিভিন্ন কারণে আমাদের চর্ম রোগ হয়ে থাকে যেগুলো অনেক চুলকায়। কিন্তু আপনি যদি লটকন ফল খেতে পারেন এবং লটকন ফল গাছের পাতা এবং ছাল পিসে চর্ম রোগে লাগান তাহলে এটা চর্মরোগ ভালো করবে।  

লটকন ত্বক সুস্থ ও সুন্দর রাখে

লটকন ফলের মধ্যে রয়েছে পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিটামিন সি যেটা আমাদের ত্বক সুস্থ ও সুন্দর রাখতে সাহায্য করে। তাই আপনি যদি নিয়মিত লটকন ফল খেতে পারেন তাহলে এটা আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করবে এবং ত্বক সুন্দর রাখবে। 

লটকন পেটের অসুখ নিরাময় করে

পেটের অসুখ নিরাময় করতে লটকন ফল এবং লটকন ফল গাছের পাতা ও শিকড় বেশ উপকারী। যদি কারো পেটের সমস্যা হয়ে থাকে তাহলে লটকন ফল গাছের পাতা অথবা শিকড় পিষে খাওয়াতে পারলে এটা পেটের অসুখ নিরাময় করে।   

লটকন ভিটামিন বি এর চাহিদা পূরণ করে

বেরিবেরি রোগ দূর করতে ভিটামিন বি অনেক কার্যকরী আর এই ভিটামিন বি পাওয়া যায় লটকন ফলের মধ্যে তাই কেউ যদি নিয়মিত লটকন ফল খায় তাহলে ভিটামিন বি এবং ভিটামিন বি ১ বি ২ এর চাহিদা পূরণ হয়।

লটকন ভিটামিন সি এর চাহিদা পূরণ করে

ভিটামিন সি সমৃদ্ধ একটি ফল হল লটকন। আর এই ভিটামিন সি আমাদের দেহের জন্য অনেক উপকারী তাই পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিটামিন সি এর চাহিদা পূরণ করতে লটকন ফল বেশ উপকারী। তাই আপনারা নিয়মিত লটকন ফল খেতে পারেন। 

লটকন দুর্বলতা দূর করে

লটকন ফলের ১৫ টি উপকারিতার ভেতর আরেকটি উপকারিতা হলো এই ফল শরীরের দুর্বলতা দূর করে। অনেক সময় আমাদের শরীর দুর্বল হয়ে পড়ে তাই দুর্বলতা দূর করতে নিয়মিত লটকন ফল খেতে পারেন।

লটকন হজম শক্তি বৃদ্ধি করে

লটকন ফল খেলে এটা হজম শক্তি বৃদ্ধি করে। তাই আপনি যদি নিয়মিত লটকন ফল খেতে পারেন তাহলে হজম শক্তি বৃদ্ধি করবে। যাদের হজম শক্তি কম তাদের জন্য লটকন বেশ উপকারী ফল। 

লটকন ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়

একটি গবেষণায় দেখা গেছে নিয়মিত লটকন ফল খেলে এটা কোলন ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়। তাই ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে লটকন ফল খেতে পারেন।

লটকন খাদ্য শক্তির যোগান দেয়

লটকন ফলের ১৫ টি উপকারিতার ভেতর আরেকটি উপকারিতা হলো এটা খাদ্য শক্তি বৃদ্ধি করে। আমরা দৈনন্দিন অনেক শক্তির কাজ করি এতে করে অনেক শক্তির প্রয়োজন হয় আর সেই খাদ্য শক্তি গুলো এই লটকন ফলের মধ্যে রয়েছে।  

আরো পড়ুন: মাশরুম এর ১৮ টি উপকারিতা - মাশরুম খাওয়ার নিয়ম

লটকন খনিজের চাহিদা পূরণ করে

লটকন ফল খনিজের চাহিদা পূরণ করে কারণ লটকন ফলে অনেক খনিজ উপাদান রয়েছে যেমন: ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, পটাসিয়াম ইত্যাদি। নিয়মিত লটকন খেলে এটা খনিজের চাহিদা পূরণ করে যা শরীর সুস্থ রাখে।

লটকন তৃষ্ণা মেটাতে উপকারী

লটকন রসালো হয়ে থাকে তাই লটকন খেলে তৃষ্ণা মেটাতে বেশ উপকারী। লটকন ফলের ১৫ টি উপকারিতার ভেতর এটা একটি সেরা উপকারিতা।  তাই এই সকল উপকারিতা পেতে লটকন ফল খাবেন।

লটকন কিভাবে খায় - লটকন খাওয়ার নিয়ম

লটকন ফল খাওয়ার নিয়ম অনেক সহজ প্রথমে একটি লটকন ফল নিবেন হাত ভালোভাবে ধুয়ে নিবেন তারপর আঙ্গুল দিয়ে লটকন ফলের খোসা গুলো ছাড়িয়ে নিবেন তারপর ভিতরে লটকন ফলের কোয়া পাবেন সেগুলো আলাদা করে নিয়ে মুখে দিয়ে খেয়ে নিবেন। এবং বিচি গুলো বাহিরে বের করে ফেলে দিবেন। এভাবেই লটকন ফল খেতে হয়। 

লটকনের পুষ্টিগুণ ও উপকারিতা

লটকন ফল অত্যন্ত পুষ্টিকর এবং অনেক সুস্বাদু। এই লটকন ফলের মধ্যে রয়েছে অনেক পুষ্টিগুন। প্রতি ১০০ গ্রাম লটকনের মধ্যে ০.৯ গ্রাম খনিজ, ১.৪২ গ্রাম আমিষ, ০.৩ গ্রাম লৌহ, ০,৪৫ গ্রাম চর্বি, খাদ্যশক্তি ৮১ কিলো ক্যালরি, ভিটামিন সি, ভিটামিন বি, বি ১, বি ২ সহ আরো পুষ্টিগুন তাই লটকন থেকে এই সকল পুষ্টিগুণ পেতে নিয়মিত লটকন খেতে পারেন।

লটকন ফলের ইংরেজি নাম কি

লটকন ফল দেখতে গোল এবং পাকলে হলুদ এর অনেক ঔষধি গুন রয়েছে। লটকন ফলের ইংরেজি নাম হলো Burmese Grape. এবং লটকন ফলের বৈজ্ঞানিক নাম হলো Baccaurea Sapida.

গর্ভাবস্থায় লটকন খাওয়া যাবে কিনা

অনেকে প্রশ্ন করে থাকেন গর্ভাবস্থায় লটকন খাওয়া যাবে কিনা? হ্যা গর্ভাবস্থায় লটকন ফল খাওয়া যাবে। কারণ গর্ভাবস্থায় লটকন ফল খেলে এটা আয়রনের চাহিদা পূরণ করে, রক্তস্বল্পতা দূর করে মোট কথা গর্ভাবস্থায় লটকন ফল খেলে প্রসবকালিন বিভিন্ন জটিলতা থেকে রক্ষা করে।

গর্ভাবস্থায় লটকন খাওয়ার উপকারিতা

গর্ভাবস্থায় লটকন খাওয়ার অনেক উপকারিতা রয়েছে। গর্ভাবস্থায় একজন গর্ভবতী মহিলার অনেক খাদ্য শক্তি ও বিভিন্ন রকম পুষ্টির প্রয়োজন হয় তাই গর্ভাবস্থায় লটকন খেলে এগুলোর চাহিদা পূরণ হয়। তাই গর্ভাবস্থায় লটকন খাওয়ার উপকারিতা হলো এটা পুষ্টির চাহিদা পূরণ করে, বিভিন্ন রকম রোগ হওয়া থেকে রক্ষা করে। 

আরো পড়ুন: আখের রসের ১২ টি উপকারিতা - আখের রসের অপকারিতা 

প্রসবকালিন সকল জটিলতা থেকে মুক্ত রাখে। তবে বিশেষজ্ঞরা বলেছেন গর্ভাবস্থায় বেশি লটকন খেলে ক্ষুধামন্দা দেখা দিতে পারে এবং বিভিন্ন রকম ঝুঁকিপূর্ণ সমস্যা হতে পারে। তাই গর্ভাবস্থায় লটকন ফলের উপকারিতা পেতে চাইলে পর্যাপ্ত পরিমাণ খাবেন। যেমন প্রতিদিন ৩ থেকে ৪ টা খেতে পারেন।

লটকনের বিচি খেলে কি হয়

লটকনের বিচি অনেক উপকারী।  লটকনের বিচি বিভিন্ন রোগের প্রতিষেধক হিসেবে কাজ করে যেমন পেটের অসুখ ভালো করে, গনোরিয়া রোগ ভালো করে। তাই লটকনের বিচির এই উপকারিতা পেতে লটকন ফল খেতে পারেন।

লটকন ফলের দাম

লটকন ফলের দাম একটু বেশি কারণ লটকন ফল পুরো বাংলাদেশে অনেক বেশি চাষ হয় না। বাংলাদেশের বিভিন্ন বাজার গুলোতে লটকন ফলের দাম প্রতি কেজি ৮০ থেকে ১০০ টাকা। এবং রাজধানীতে লটকন ফল প্রতি কেজি ১০০ থেকে ১১০ টাকা।

লটকন ফলের অপকারিতা

লটকন ফলের অপকারিতা তেমন নেই তারপরেও অতিরিক্ত বেশি পরিমাণ লটকন ফল খেলে কিছু অপকারিতা দেখা দিতে পারে। যেমন:

১. একসাথে অতিরিক্ত লটকন ফল খেলে ক্ষুদামন্দা   দেখা দিতে পারে তাই অতিরিক্ত লটকন খাবেন না।

২। অতিরিক্ত লটকন খেলে পেটের সমস্যা হতে পারে।

৩। লটকনে ভিটামিন সি রয়েছে তাই অতিরিক্ত পরিমাণ খেলে অ্যাসিডিটি হতে পারে।

লটকন ফলের ছবি

লটকন ফলের ১৫ টি উপকারিতা এবং লটকন ফলের অপকারিতা সম্পর্কে আশা করছি জানতে পারলেন। কিন্তু অনেকে লটকন ফলের ছবি খুঁজে থাকেন তাই আপনাদের জন্য নিচে কিছু লটকন ফলের ছবি দিয়ে দিলাম দেখে নিন লটকন ফলের ছবি গুলো।

লটকন ফলের ছবি

লটকন ফলের ছবি

লটকন ফলের ছবি
ছবি কালেক্ট: floraofbangladesh.com । wikipedia.org । pexels.com 

লটকন ফলের ১৫ টি উপকারিতা - লটকন ফলের অপকারিতা: শেষ কথা

প্রিয় বন্ধুরা আজকের আর্টিকেল এর মাধ্যমে আপনাদের জানালাম লটকন ফলের ১৫ টি উপকারিতা লটকন ফলের অপকারিতা সহ লটকন ফল সম্পর্কিত অনেক কিছু বিষয়ে। আশা করছি আপনারা এই সকল বিষয়ে বিস্তারিত ভাবে জানতে পেরেছেন এবং কিছুটা হলেও আপনারা এগুলো বিষয়ে জানতে পেরে উপকৃত হবেন।

তারপরে যদি এই বিষয়ে আপনাদের আরো কোন প্রশ্ন বা মতামত থাকে তাহলে কমেন্টের মাধ্যমে আমাদের জানাতে পারেন। এবং এরকম আরো তথ্যমূলক আর্টিকেল নিয়মিত পেতে আমাদের JONOPRIYO BLOG ওয়েবসাইট নিয়মিত ফলো করুন। এতক্ষণ আমাদের সাথে থাকার জন্য আপনাদেরকে অসংখ্য ধন্যবাদ। 

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন