সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় - অস্ট্রেলিয়া বেতন কত

বন্ধুরা সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় কি এবং অস্ট্রেলিয়া বেতন কত যদি জানতে চান তাহলে আজকের আর্টিকেলটি আপনার জন্য। আজকের আর্টিকেলে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হবে সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় সহ এই সম্পর্কিত আরো কিছু বিষয়ে। তাহলে চলুন আজকের এই আর্টিকেল এর মাধ্যমে জেনে নিন সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় কি সেই সম্পর্কে।
সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায়

সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় অস্ট্রেলিয়া ভিসা আবেদন করার নিয়ম অস্ট্রেলিয়া বেতন কত এই সকল বিষয় সহ এ সম্পর্কিত আরো কিছু বিষয়ে আলোচনা করা হবে তাই আপনি যদি সকল বিষয়ে জানতে চান তাহলে আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে শেষ পর্যন্ত পড়তে থাকুন।

পোস্ট সূচিপত্রঃ সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় - অস্ট্রেলিয়া বেতন কত

সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায়

বর্তমানে অনেকেই সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় সম্পর্কে জানতে চেয়ে থাকেন কারণ অনেকেই সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়াতে যেতে চান। আপনি যদি সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়াতে যেতে চান তাহলে তিনটি ভিসার মাধ্যমে যেতে পারবেন। সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার জন্য তিনটি ক্যাটাগরির ভিসা পাওয়া যায় সেগুলো হলো।

  1. শিক্ষিত শ্রেণী
  2. স্টুডেন্ট ভিসা
  3. প্রবাসী

শিক্ষিত শ্রেণীঃ যাদের শিক্ষাগত যোগ্যতা একটু বেশি রয়েছে এবং সমমান পাস করেছে ইংরেজিতে ভালোভাবে কথা বলতে এবং লিখতে পারে তারা এই ভিসায় আবেদন করতে পারবে।  

আরো পড়ুনঃ জাতীয় পরিচয় পত্র চেক - জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর

স্টুডেন্ট ভিসাঃ যারা উচ্চ শিক্ষার জন্য অস্ট্রেলিয়া যেতে চান তাদের জন্য এই ভিসা। উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের জন্য তারা এই স্টুডেন্ট ভিসায় আবেদন করতে পারবে।

প্রবাসীঃ অনেকে ভাবছেন প্রবাসী ভিসা আবার কেমন প্রবাসী ভিসা হলো যারা পূর্বে অন্য অন্য দেশে বসবাস করেছেন তারা এই ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় সম্পর্কে আরো বিস্তারিতভাবে জানতে পারবেন সেজন্য আর্টিকেলটি শেষ পর্যন্ত পড়তে থাকুন।

অস্ট্রেলিয়া ভিসা আবেদন

আপনি যদি অস্ট্রেলিয়া যেতে চান তাহলে অস্ট্রেলিয়া ভিসা আবেদন সম্পর্কে জানতে হবে কারণ অস্ট্রেলিয়ার ভিসা কোন এজেন্ট এর মাধ্যমে পাওয়া যায় না যদি কেউ আপনাকে বলে যে কোন এজেন্টের মাধ্যমে আপনাকে অস্ট্রেলিয়ার ভিসা দিবে তাহলে বিশ্বাস করবেন না। অস্ট্রেলিয়ার ভিসা আবেদন করার জন্য প্রথমে আপনাকে যেতে হবে https://immi.homeaffairs.gov.au এই ওয়েবসাইটে।ওয়েবসাইটে যাওয়ার পরে অস্ট্রেলিয়া ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

কিন্তু অস্ট্রেলিয়া ভিসা আবেদন করার আগে আপনার আরেকটি বিষয় খুঁজে বের করতে হবে সেটা হল আপনি কোন জব করতে চাচ্ছেন সেই জবের সকল কিছু তথ্য। সেজন্য অস্ট্রেলিয়া জব খোঁজার জন্য আপনাকে যেতে হবে আরেকটি ওয়েবসাইটে।  

আপনি যে জব খুজতেছেন সেটা আগে খুঁজে বের করুন খুঁজে বের করার পরে একটা সিভি জমা দিতে হবে। সিভিতে আপনার যত রকম অভিজ্ঞতা রয়েছে এবং সকল কিছু তথ্য সঠিক দিবেন। কখনো ভুল তথ্য দেওয়ার চেষ্টা করবেন না। 

সিভি সাবমিট করার জন্য আপনি যে জব করতে চান সেই জবের কোম্পানির ইমেইল সংগ্রহ করুন এবং সঠিকভাবে সিভি তৈরি করে পিডিএফ ফাইল করে কোম্পানির জিমেইল ঠিকানায় সাবমিট করুন।এভাবে আপনি অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার জন্য আবেদন করতে পারেন যদি সকল কিছু সঠিক থাকে তাহলে তারা আপনাকে জানিয়ে দিবে। 

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা ২০২৩

আপনি যদি অস্ট্রেলিয়া যেতে চান তাহলে প্রথমে জানতে হবে সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় যা ইতোমধ্যে আপনাদের বলে দিয়েছি। অনেকেই অস্ট্রেলিয়াতে কাজের ভিসার মাধ্যমে যেতে চান তাই জানতে হবে অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা সম্পর্কে। 

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা আপনি তিন প্রকারে করতে পারবেন সেগুলো হলো স্বল্প স্থায়ী কাজের ভিসা, অস্থায়ী কাজের ভিসা ও স্থায়ী কাজের ভিসা। যেটা স্বল্প স্থায়ী ভিসা সেটা একবছরে জন্য হয়ে থাকে। এই ভিসাতে গেলে আপনার আগে থেকে কোনো কাজের অভিজ্ঞতা না থাকলেও চলবে আর এই ভিসার সময় শেষ হওয়ার আগে আপনি আবার স্থায়ী ভিসা করে নিতে পারবেন। 

আরো পড়ুনঃ টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় বাংলাদেশে - ফ্রি টাকা ইনকাম

আর আপনি যদি অস্ট্রেলিয়াতে অস্থায়ী কাজের ভিসাতে যান তাহলে একটু সমস্যা হতে পারে তবে আপনি যদি কোনো কাজের ওপর ভালো দক্ষ থাকেন তাহলে কোনো সমস্যা হবে না এবং পরবর্তীতে আপনি স্থায়ী ভিসা করে নিতে পারবেন সেই সাথে পরিবার কেউ নিয়ে যেতে আবেদন করতে পারবেন।

স্থায়ী কাজের ভিসায় যদি অস্ট্রেলিয়া যেতে চান তাহলে আপনার যেকোনো কাজের ওপর ভালো অভিজ্ঞতা থাকতে হবে কোনো কাজের ওপর কমপক্ষে তিন চার বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। এবং স্থায়ী কাজের ভিসার আবেদন করার জন্য কমপক্ষে ৪০ এর বেশি হতে হবে। এবং স্থায়ী কাজের ভিসার জন্য স্কিল টেস্ট করা হবে যার রেজাল্ট ৬০ এর ওপর থাকতে হবে।

বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায়

সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় কি জানতে পেরেছেন নিচে আপনাদের জানাবো অস্ট্রেলিয়া বেতন কত কিন্তু তার আগে এই অংশে জেনে নিন বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় সম্পর্কে। বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার জন্য অনেক গুলা ধাপ পার করতে হবে। 

বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যেতে পারবেন কয়েকটি ভিসার মাধ্যমে যেমন টুরিস্ট ভিসা, স্টুডেন্ট ভিসা,মেডিকেল ভিসা, কৃষি ভিসা ইত্যাদি। বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার জন্য পাসপোর্ট, ভিসা, এবং বিমান এর টিকেট থাকতে হবে। সব কিছু যদি ঠিকঠাক থাকে তাহলে আপনি বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যেতে পারবেন।

অস্ট্রেলিয়া বেতন কত

অস্ট্রেলিয়া বেতন কত এটা অনেকেই জানতে চান আসলে অস্ট্রেলিয়া বেতন বিভিন্ন কাজ অনুযায়ী বিভিন্ন রকম হয়ে থাকে। অস্ট্রেলিয়া আপনি পেতে পারেন সর্বনিম্ন কাজের বেতন ২৫ থেকে ৩০ হাজার এর মত। এবং অস্ট্রেলিয়াতে বেসিক বেতন হিসেবে পেতে পারেন ৪৫ থেকে ৫০ হাজারের মতো। 

এবং অস্ট্রেলিয়াতে যদি আপনি একটু ভালো মানের কাজ করতে পারেন তাহলে আপনি বেতন পেতে পারেন এক লাখ দেড় লাখ এবং সর্বোচ্চ দুই লাখ টাকার মত। তবে প্রথমে আপনি এত বেশি বেতন পাবেন না। যদি কোন কাজের মধ্যে অনেকদিন থাকতে পারেন এবং ভালো করতে পারেন তাহলে আপনার বেতন আস্তে আস্তে বেশি হবে। 

আরো পড়ুনঃ মেয়েদের ঘরে বসে ইনকাম করার উপায় - ঘরে বসে ইনকাম

আপনি যদি অস্ট্রেলিয়াতে ড্রাইভিং এর কাজ করেন তাহলে কিছুটা কম টাকা পাবেন। কিন্তু আপনি যদি কোন ইঞ্জিনিয়ারিং কাজ করতে পারেন তাহলে অনেক বেশি বেতন পাবেন। তাই বলা যায় অস্ট্রেলিয়া বেতন আপনি কোন কাজ করেছেন সেই কাজের উপর নির্ধারণ হবে। আশা করছি কিছুটা হলেও ধারণা পেলেন অস্ট্রেলিয়া বেতন কত হতে পারে। 

অস্ট্রেলিয়া স্টুডেন্ট ভিসা খরচ

অস্ট্রেলিয়া বেতন কত তা আপনারা জানতে পারলেন এবার আপনাদের জানাবো অস্ট্রেলিয়া স্টুডেন্ট ভিসা খরচ সম্পর্কে। প্রথমেই আপনাদের একটা কথা বলে আপনি যদি সরকারিভাবে স্টুডেন্ট ভিসায় অস্ট্রেলিয়া যেতে চান তাহলে আপনার খরচ অনেকটা কম হবে আর আপনি যদি কোন এজেন্সি বা দালালের মাধ্যমে যেতে চান তাহলে খরচ অনেক বেশি হবে। তাই প্রথমেই বলব আপনি যদি স্টুডেন্ট ভিসার মাধ্যমে অস্ট্রেলিয়া যেতে চান তাহলে সরকারিভাবে যাওয়ার চেষ্টা করবেন।

অস্ট্রেলিয়াতে স্টুডেন্ট ভিসায় যেতে আগে খরচ অনেক কম লাগতো কিন্তু বর্তমানে খরচ অনেকটা বেশি হয়ে গেছে। অস্ট্রেলিয়া স্টুডেন্ট ভিসা প্রসেসিং করতে সব মিলিয়ে ১ লক্ষ থেকে দেড় লক্ষ টাকার মতো লাগতে পারে। 

আপনি যদি নিজে নিজে সবকিছু করতে পারেন তাহলে টাকা কিছুটা কম লাগবে আর আপনি যদি দালালের মাধ্যমে করতে যান তাহলে টাকা অনেক বেশি লাগবে। তাই দালালের মাধ্যমে না করে নিজে করার চেষ্টা করবেন। এই ব্যাপারে আরো কোনো তথ্য যদি পেতে চান তাহলে আমাদের কমেন্ট করতে পারেন।

বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যেতে কত টাকা লাগে

বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যেতে কত টাকা লাগে এটা অনেকের প্রশ্ন করে থাকেন আসলে আপনি যদি সরকারিভাবে বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যান তাহলে আপনার খরচ বা টাকা কিছুটা কম লাগবে আর আপনি যদি বেসরকারিভাবে এবং যেকোনো এজেন্সির মাধ্যমে যেতে চান তাহলে খরচ কিছুটা বেশি লাগবে। 

সবার আগে লেটেস্ট আপডেট পেতে ফলো করুন আমাদের গুগল নিউজ

তারপরেও আপনাদের একটা ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করি। বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যেতে সবকিছু মিলিয়ে ১০ লক্ষ টাকা থেকে ১২/১৩ লক্ষ টাকা লাগে। এটা একটা ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করলাম বিভিন্ন কাজের জন্য টাকার পরিমাণ কম বেশি হয়ে থাকে। আশা করছি আজকের আর্টিকেল থেকে আপনারা ভালোভাবে জানতে পারলেন সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় কি ও অস্ট্রেলিয়া বেতন কত সহ আরো অনেক কিছু বিষয়ে। 

সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় - অস্ট্রেলিয়া বেতন কতঃ শেষ কথা

সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় অস্ট্রেলিয়া ভিসা আবেদন অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা ২০২৩ বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় অস্ট্রেলিয়া বেতন কত অস্ট্রেলিয়া স্টুডেন্ট ভিসা খরচ বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যেতে কত টাকা লাগে এই সকল বিষয়ে আজকের আর্টিকেল আলোচনা করা হয়েছে। 

আশা করছি আপনারা এই সকল বিষয়ে ভালোভাবে জানতে পেরেছেন তারপরেও যদি এই বিষয়ে আরো কিছু জানার থাকে তাহলে কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন। এবং এরকম আরো তথ্যমূলক আর্টিকেল পেতে আমাদের Jonopriyo blog ওয়েবসাইট নিয়মিত ভিজিট করতে পারেন। এতক্ষন আমাদের সাথে থাকার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। 

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন