প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন ২০ টি সহজ কাজ করে

প্রিয় বন্ধুরা প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন কিছু সহজ কাজ করে। অনেকেই অনলাইনে মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে চান সেজন্য আজকে আপনাদের জানাবো অনলাইন এবং অফলাইন এই দুটি মাধ্যমে প্রতি সপ্তাহে ৪ হাজার টাকা পর্যন্ত আয় করার উপায়।
প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন ২০ টি সহজ কাজ করে

তাই আপনি যদি প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন কিছু সহজ কাজ করে এই আর্টিকেলটি শেষ পর্যন্ত পড়েন তাহলে হয়তো এরকম বেশি কিছু একটা টাকা আয় করতে পারবেন। তো চলুন এ বিষয়ে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

পোস্ট সূচিপত্রঃ প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন ২০ টি সহজ কাজ করে 

প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন ২০ টি সহজ কাজ করে: ভূমিকা

অনলাইন এবং অফলাইনে কিছু কাজ রয়েছে যেগুলো কাজ করার মাধ্যমে আপনি প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। তবে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করার জন্য আপনাকে এই বিষয়ে জানতে হবে এবং প্রচুর পরিমাণ পরিশ্রম করতে হবে এবং ধৈর্য ধারণ করতে হবে। 

আরো পড়ুন: মাসে ৫০ হাজার টাকা আয় করার ২৫ টি সেরা উপায়

তাহলে কেবলমাত্র আপনি প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। কিন্তু কিভাবে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করা যায় এটা আপনাদের জানার প্রয়োজন তাই চলুন নিচের অংশগুলো থেকে অনলাইন এবং অফলাইন কিছু কাজ সম্পর্কে জেনে নেই যেগুলো কাজ করার মাধ্যমে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। 

অনলাইনের মাধ্যমে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

এই অংশ আপনাদের জানাবো অনলাইনের মাধ্যমে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করার ১০ টি উপায়। এবং নিচের অংশে আরো দশটি অফলাইনের মাধ্যমে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করার উপায় জানাবো। তো জেনে নিন অনলাইনের মাধ্যমে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করার উপায়। 

ব্লগিং ওয়েবসাইট থেকে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

অনলাইনের মাধ্যমে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় আপনি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। এবং সেই ওয়েবসাইটের মধ্যে এখন আপনি যেরকম লেখা বা বিষয় সম্পর্কে পড়ছেন এরকম বিষয় সম্পর্কে লিখতে পারেন এবং আপনার ওয়েবসাইট গুগল এডসেন্স এর মাধ্যমে মনিটাইজেশন করাতে পারেন। 

আপনি যদি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করেন সেটা ভালো পর্যায়ে নিয়ে যেতে পারেন এবং নিয়মিত কাজ করতে থাকেন তাহলে সেই ওয়েবসাইট থেকে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। তবে আপনার যদি ইংরেজিতে ভালো দক্ষতা থাকে তাহলে একটি ওয়েবসাইট থেকে প্রতিমাসের চার হাজার টাকার বেশি আয় করতে পারবেন। 

কিভাবে ব্লগিং ওয়েবসাইট তৈরি করতে হয় এবং কাজ করতে হয় এ বিষয়ে আরো বিস্তারিত জানতে চাইলে নিচে কমেন্ট করে জানাতে পারেন। তাহলে আপনাদেরকে আরো একটি আর্টিকেল মাধ্যমে জানানোর চেষ্টা করব কিভাবে ওয়েবসাইট তৈরি করতে হয় এবং কাজ করতে হয়। 

কন্টেন্ট রাইটিং করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

কন্টেন্ট রাইটিং করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। কন্টেন রাইটিং কি যদি বুঝতে না পারেন তাহলে আসুন আপনাদের বুঝিয়ে দিই। এই যে আপনি এখন যে এই লেখাটি পড়ছেন এটাই একটি কন্টেন্ট। আপনি যদি লেখা শিখতে পারেন তাহলে এরকম কন্টেন্ট আপনিও দেখতে পারবেন। 

কন্টেন্ট রাইটিং করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয়

অনেক ওয়েবসাইট এর মালিক রয়েছে যারা তাদের ওয়েবসাইটে অন্য জনকে দিয়ে আপনি যেটা করেছেন এরকম কন্টেন্ট লিখে নিয়ে থাকে এবং তার বিনিময়ে টাকা দিয়ে থাকে। আপনার যদি লেখালেখি করতে ভালো লাগে এবং লেখালেখি করার মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে কন্টেন্ট রাইটিং এর কাজ শিখতে পারেন। 

কিভাবে কন্টেন্ট রাইটিং করতে হয় যদি না জানেন তাহলে আমাদের কমেন্ট করুন আমরা আপনাকে আরেকটি পোষ্টের মাধ্যমে সমস্ত কিছু জানিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করব। আর আপনি যদি ইংরেজিতে ভালো পারদর্শী হয়ে থাকেন তাহলে কন্টেন্ট রাইটিং করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকার বেশি ইনকাম করতে পারবেন। 

photo credit: flickr.com

ইউটিউব চ্যানেল থেকে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

ইউটিউব চ্যানেল থেকে টাকা ইনকাম করা যায় আপনারা হয়তো সবাই জেনে থাকবেন কিন্তু ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করার জন্য প্রচুর পরিমাণ পরিশ্রম করতে হবে এবং ধৈর্য থাকতে হবে। আপনার মধ্যে যদি এরকম পরিশ্রম করার ইচ্ছা থাকে এবং ধৈর্য ধারণ করার শক্তি থাকে তাহলে আপনিও পারবেন ইউটিউব চ্যানেল থেকে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে। 

বর্তমানে আমাদের সবার হাতেই android স্মার্টফোন রয়েছে। তাই ইউটিউব থেকে টাকা করার জন্য আপনার কোন দামি ক্যামেরা বা ল্যাপটপ এর প্রয়োজন নেই। আপনার হাতে যে মোবাইল রয়েছে সেটার মাধ্যমে আপনি যেরকম ভিডিও তৈরি করতে পারবেন সেরকম ভিডিও তৈরি করবেন এবং আপনার ইউটিউব চ্যানেলে প্রতিনিয়ত আপলোড করবেন। 

আরো পড়ুন: মেয়েদের ঘরে বসে ইনকাম করার উপায় - ঘরে বসে ইনকাম

দেখবেন একটা সময় আপনার ইউটিউব চ্যানেল অনেক বড় হয়ে যাবে এবং সেখানে মনিটাইজেশন করার মাধ্যমে ভালো পরিমাণ টাকা আয় করতে পারবেন। কি ধরনের ভিডিও করবেন যদি বুঝতে না পারেন তাহলে আসুন আপনাদেরকে বুঝিয়ে দিই। 

মনে করেন আপনি প্রতিনিয়ত এখানে সেখানে ঘোরাফেরা করেন তো আপনার অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ফোন দিয়ে সেগুলো জায়গার ভিডিও ধারণ করবেন এবং মানুষদের দেখানোর জন্য আপলোড করবেন। এছাড়াও আরো অনেক ধরনের ভিডিও রয়েছে আপনি যেটাতে বেশি পারদর্শী সেটা দিয়ে শুরু করবেন। 

ফেসবুক পেজ থেকে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

আমরা বেশিরভাগ মানুষ ফেসবুকে নিতেই বিনোদন নেওয়ার জন্য এবং সময় কাটানোর জন্য ব্যবহার করে থাকি কিন্তু এই ফেসবুক ব্যবহার করার মাধ্যমে চাইলে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তবে ফেসবুক পেজ থেকে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করার জন্য ফেসবুক পেজে কাজ করার ধৈর্য থাকতে হবে এবং পরিশ্রম করার মত শক্তি থাকতে হবে। 

যদি একটি ফেসবুক পেজ তৈরি করতে পারেন এবং সেখানে বিভিন্ন রকম ভিডিও তৈরি করে আপলোড করতে পারেন একটা সময় দেখবেন আপনার ভিডিও গুলো অনেক মানুষ দেখছি এবং তখন আপনি আপনার ফেসবুক পেজ মনিটাইজেশন অন করাতে পারবেন এবং এখান থেকে ভালো পরিমান টাকা আয় ইনকাম করতে পারবেন। এজন্য আপনার দৃঢ় মনোবল থাকতে হবে। যদি অল্পতেই হতাশ হয়ে যান তাহলে এখান থেকে টাকা আয় করতে পারবেন না। 

রিসেলিং ব্যবসা করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

রিসেলিং ব্যবসা করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। রিসেলিং ব্যবসা কি যদি না বুঝে থাকেন তাহলে আসুন এই বিষয়ে বুঝিয়ে দিচ্ছি। মনে করেন অনেক শপিং সেন্টার রয়েছে বা অন্যান্য প্রডাক্ট ব্যবহার করে এরকম অনেক ব্যবসায়ী রয়েছে যারা তাদের পণ্য অনলাইনের মাধ্যমে বিক্রয় করে থাকে। 

কিন্তু তারা একা একা হয়তো অনেকগুলো প্রোডাক্ট বিক্রি করতে পারবেনা সেজন্য তারা অফার দিয়ে থাকে সেটা হল তাদের প্রোডাক্ট আপনার মাধ্যমে সেল করে দিবেন আর এই সেল অর্থাৎ বিক্রি করে দেওয়ার জন্য তারা আপনাকে টাকা প্রদান করবে। এভাবে আপনি যদি বেশি বেশি রিসেলিং করে দিতে পারেন তাহলে একটা সময় রিসেলিং ব্যবসা করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। অনেকে এর থেকেও বেশি করে থাকে। 

অনলাইন গেম খেলে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

অনলাইনে অনেক গেম রয়েছে যেগুলো গেম খেলার মাধ্যমে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। অনলাইনে বিভিন্ন গেম খেলার অ্যাপস রয়েছে যেমন, MPL Gaming App, Mistplay App, Rewarded Play ইত্যাদি এরকম আরো অনেক গেমিং অ্যাপ রয়েছে যেগুলো গেমে অ্যাপসে গেম খেলার মাধ্যমে টাকা আয় করতে পারবেন। 

তবে এখানে যদি আগে টাকা জমা দিয়ে গেম খেলতে হয় তাহলে সেই গেম খেলা থেকে বিরত থাকতে পারবেন কারণ এটা এক ধরনের জুয়া হতে পারে এবং সকল প্রকার জুয়া খেলা ইসলামী নিষিদ্ধ বা হারাম। তবে কোন রকম ইনভেস্ট ছাড়া যদি কোন অ্যাপসের মাধ্যমে টাকা আয় করা যায় তাহলে সেগুলোতে কাজ করতে পারেন। 

ওয়েব ডেভলপার হয়ে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

বর্তমানে অনেকে তাদের ব্যবসার জন্য এবং কোম্পানির জন্য ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান। কিন্তু একটি ওয়েবসাইট তো যে কেউ তৈরি করতে পারে না। শুধুমাত্র যারা ওয়েব ডেভলপার তারাই ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারে সেজন্য আপনি চাইলে ওয়েব ডেভলপার হয়ে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। 

ওয়েব ডেভলপার হয়ে টাকা আয় করার জন্য প্রথমে আপনাকে এই কাজ ভালোভাবে শিখতে হবে।ওয়েব ডেভলপার হওয়া তেমন একটা সহজ কাজ নয় কারণ এখানে বিভিন্ন রকম কোডিং সম্পর্কে জানতে হয় শিখতে হয় যা অনেকের মাথায় ঢুকবে না। কিন্তু আপনি যদি মনোযোগ দিয়ে চেষ্টা করেন তাহলে অবশ্যই আপনি ওয়েব ডেভলপার হতে পারবেন। এবং আপনি যদি একজন ভালো ওয়েব ডেভলপার হন তাহলে অনেক কাজ পাবেন এবং সেগুলো কাজ করার মাধ্যমে প্রচুর টাকা আয় করতে পারবেন। 

এসইও এক্সপার্ট হয়ে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

বর্তমানে এসইও এক্সপার্ট দের চাহিদা অনেক বেশি কারণ অনেক ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান রয়েছে যারা তাদের ব্যবসা বৃদ্ধি করার জন্য ওয়েবসাইট তৈরি করে এবং সেগুলো ওয়েবসাইটে বিভিন্ন প্রোডাক্টের লিস্ট তৈরি করে এবং যারা এসইও এক্সপার্ট রয়েছে তারা তাদের সেই প্রোডাক্টগুলো এমনভাবে SEO করে যাতে করে সেগুলো প্রোডাক্ট সম্পর্কে যখন মানুষ জানতে চাইবে তখন সেটা গুগলের প্রথম পেজে দেখায়।

এসইও এক্সপার্ট প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

আর সচরাচর মানুষ গুগলে কোন কিছু নিয়ে সার্চ করে এবং প্রথমে যে ওয়েবসাইট আছে সেটাতেই প্রবেশ করে। তাই আপনি যদি SEO অর্থাৎ সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন এর কাজে এক্সপার্ট হতে পারেন তাহলে অনেক এজেন্সি আপনাকে হায়ার করতে পারে এবং তাদের কাজগুলো করে দেওয়ার মাধ্যমে ভালো পরিমাণ টাকায় করতে পারবেন।

photo credit: quora.com

গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

মানুষ সব সময় সুন্দরের উপর বেশি আকৃষ্ট হয়ে থাকে। তেমনি আপনি যদি অনলাইনে কোন বিজনেস করে থাকেন তাহলে আপনি যত বেশি সুন্দর সুন্দর ডিজাইনের মাধ্যমে বিভিন্ন প্রোডাক্ট বা পণ্য মানুষের মাঝে উপস্থাপন করতে পারবেন তত মানুষ সেটার প্রতি আকৃষ্ট হবে এবং এতে করে আপনার ব্যবসার উন্নতি হবে তাড়াতাড়ি। 

আরো পড়ুন: টাকা ইনকাম করার সহজ ৯ টি উপায় বাংলাদেশে - ফ্রি টাকা ইনকাম 

তাই অনেক এজেন্সি রয়েছে তারা তাদের ব্যবসার জন্য বিভিন্ন রকম ডিজাইন তৈরি করতে চাই আর সেজন্য যারা গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজে পারদর্শী তাদের খুঁজে থাকে। আপনি যদি একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনার হতে পারেন তাহলে গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। অনেকে এর থেকেও বেশি করতে পারে। তাই অনলাইনের মাধ্যমে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে চাইলে গ্রাফিক্স ডিজাইনার হতে পারেন। 

এফিলিয়েট মার্কেটিং করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

এফিলিয়েট মার্কেটিং করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন এজন্য আপনাকে এই সম্পর্কে ভালোভাবে জানতে হবে। আপনার যদি একটি ওয়েবসাইট থাকে কিংবা ফেসবুক পেজ ইউটিউব চ্যানেল থাকে তাহলে সেগুলো মাধ্যম ব্যবহার করে এফিলিয়েট মার্কেটিং করে টাকা আয় করতে পারবেন।

এফিলিয়েট মার্কেটিং কি যদি না বুঝে থাকেন আসুন তাহলে বুঝিয়ে দিচ্ছি। অনেকে তাদের ওয়েবসাইট এবং ফেসবুক পেজের মাধ্যমে বিভিন্ন রকম পণ্য বিক্রয় করে থাকে। এবং তারা একটি অফার দিয়ে থাকে যে তাদের সেই পণ্যগুলো যদি অন্য কেউ বিক্রয় করে দিতে পারে তাহলে তারা সেই ব্যক্তিকে টাকা প্রদান করবে। তাই আপনার যদি একটি ওয়েবসাইট থাকে তাহলে সেখানে সেই পন্য নিয়ে একটি আর্টিকেল লিখতে পারেন। 

এবং মানুষজন যখন সে আর্টিকেল পড়তে আসবে এবং সেই পণ্যটি কিনতে চাইবে তখন আপনার ওখানে দেওয়া লিংকে ক্লিক করে তারা যদি সে পণ্যটি কিনে তাহলে আপনি সেই পণ্য থেকে কিছু কমিশন পেয়ে যাবেন। আর এভাবেই এফিলিয়েট মার্কেটিং করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। 

অফলাইনে ১০ টি কাজ করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

উপরে আপনারা জানলেন অনলাইনের মাধ্যমে ১০ টি টাকা আয় করার উপায়। আমরা যেহেতু জানাতে চেয়েছি প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন ২০ টি সহজ কাজ করে তাই এই অংশে অফলাইনের মাধ্যমে ১০ টি কাজ করে টাকাই করার উপায় জানাবো। আসুন জেনে নেওয়া যাক অফলাইনে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করার উপায় গুলোঃ 

হাঁস মুরগি পালন করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

বর্তমানে হাঁস মুরগি এবং হাঁস মুরগির ডিমের দাম অনেক বেশি সেজন্য আপনি যদি হাঁস মুরগি পালন করতে পারেন তাহলে হাঁস মুরগি পালন করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন।প্রথমে হয়তো এত ইনকাম করতে পারবেন না কারণ প্রথমে আপনার পুঁজি কম থাকবে তাই আপনি অল্প দিয়ে শুরু করবেন। 

হাঁস মুরগি পালন করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয়

এবং আস্তে আস্তে যখন আপনার লাভ হতে থাকবে তখন আপনি হাঁস-মুরগির পরিমাণ বাড়িয়ে দেবেন আর এভাবেই হাঁস মুরগি পালন করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। তবে এভাবে টাকা আয় করার জন্য কোন রকম লজ্জা শরম করা যাবে না এবং ধৈর্য সহকারে করে যেতে হবে। 

photo credit: quora.com 

ডেইরি ফার্ম করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

আপনার হাতে যদি কিছু টাকা থাকে এবং আপনার যদি হালকা পরিমাণ জমি জমা থাকে তাহলে আপনার সেই টাকা দিয়ে গরু কিনতে পারেন এবং সেগুলো জমির মধ্যে ঘাস লাগাতে পারেন। প্রথমে হয়তো কম টাকা আসার জন্য একটি দুইটি গরু ক্রয় করতে পারবেন। 

আস্তে আস্তে যখন সেখান থেকে ভালো পরিমাণ তখন আরো বেশি দুগ্ধ জাতীয় গরু ক্রয় করবেন। আর এভাবেই আপনি যদি কয়েক বছর পরিশ্রম করে যেতে পারেন তাহলে একটা সময় ভালো পরিমান টাকা আয় করতে পারবেন। এছাড়া বিভিন্ন এজেন্সি লোন দিয়ে থাকে ডেইরি ফার্ম করার জন্য আপনার যদি সেই রকম সামর্থ্য থাকে তাহলে সেখান থেকে লোন নিয়ে ডেইরি ফার্ম করতে পারেন। 

মুদি দোকান দিয়ে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

বর্তমানে মুদির দোকানের ব্যবসা অনেক ভালো। কারণ আমাদের দৈনন্দিন জীবনে বিভিন্ন রকম জিনিসের প্রয়োজন হয় এবং আমাদের দৈনন্দিন খাবার খাওয়ার প্রয়োজন পড়ে। আর এই সকল খাবারের জিনিসগুলো পাওয়া যায় মুদির দোকানে। তাই আপনার কাছে যদি কিছু পরিমাণ টাকা থাকে তাহলে আপনি একটি মুদির দোকান দিতে পারেন। 

প্রথমে হয়তো অত বড় করে দিতে পারবেন না সেজন্য লাভ একটু কম হবে কিন্তু আপনি যখন আস্তে আস্তে লাভ করতে থাকবেন এবং আপনার ব্যবসা বৃদ্ধি করতে পারবেন তখন দেখবেন প্রচুর পরিমাণ ইনকাম বৃদ্ধি পেয়ে যাবে। তবে এখানে লস যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে কারণ অনেক মানুষ বাকি নিয়ে টাকা দিতে চায় না। তাই মুদি ব্যবসা করলে কোন প্রকার বাকি বিক্রয় করবেন না। 

বিভিন্ন রকম মসলার দোকান দিয়ে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

বর্তমানে বিভিন্ন রকম মসলার দাম প্রায় আকাশ ছোঁয়া। আমাদের বেঁচে থাকার জন্য খাবার খাওয়ার প্রয়োজন পড়ে আর সেই খাবার তরকারি রান্না করার জন্য বিভিন্ন রকম মসলার প্রয়োজন পড়ে। যেগুলো আমরা চাইলেও এড়িয়ে যেতে পারবো না। তাই বিভিন্ন রকম মসলার দোকান দিয়ে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। 

এজন্য আপনার প্রথমে কিছু টাকার প্রয়োজন হবে সেই টাকাগুলো দিয়ে মসলা কিনে আনবেন এবং সেগুলো আপনার নিকটস্থ বাজারে বিক্রয় করবেন। যদি আপনি এটি করতে পারেন তাহলে দেখবেন এখান থেকে অনেক বেশি টাকা আয় করতে পারবেন। আর আপনার যদি নিজের জমি থাকে তাহলে সেগুলোতেও এগুলো মসলা ফলাতে পারেন এবং বিক্রয় করে টাকা আয় করতে পারেন। 

চায়ের দোকান দিয়ে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন 

মানুষজন সারা দিনের কাজ কাম শেষ করার পরে একটু আড্ডা দেওয়ার জন্য বা সময় কাটানোর জন্য চায়ের দোকানে গিয়ে বসে। তাই আপনি যদি চায়ের দোকান দিতে পারেন তাহলে চায়ের দোকান দিয়ে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। 

চায়ের দোকান দিয়ে আয় করার জন্য আপনাকে চা তৈরি করা শিখতে হবে। যদি ভালোভাবে যা তৈরি করতে পারেন তাহলে আপনার নিকটস্থ বাজারে বা এলাকায় একটি চায়ের দোকান দিবেন। এবং চায়ের পাশাপাশি সেখানে আরো কিছু খাবার রাখবেন এতে করে প্রতি সপ্তাহে ভালো পরিমাণ টাকা আয় হবে। 

ফুচকা চটপটি দোকান দিয়ে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

বর্তমানে ছেলে মেয়েরা ফুচকা এবং চটপটি খেতে অনেক পছন্দ করে থাকে। ফুচকা চটপটি দোকান দিয়ে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় বর্তমানে কোন ব্যাপারই না। ফুচকা এবং চটপটি দোকান দেওয়ার জন্য প্রথমে আপনার কিছু টাকার প্রয়োজন হবে এবং প্রয়োজনীয় সামগ্রীগুলো ক্রয় করতে হবে।

ফুচকা চটপটি কিভাবে তৈরি করে সেগুলো শিখতে হবে এবং প্রয়োজনীয় সামগ্রি কেনা হয়ে গেলে সুন্দরভাবে ফুচকা এবং চটপটি তৈরি করতে হবে তারপরে নিকটস্থ বাজারে বা কোন প্রতিষ্ঠানের আশেপাশে বসতে হবে। অথবা যেখানে মানুষজন বেশি ভিড় করে ঘুরতে যাই সেগুলো জায়গায় বসবেন দেখবেন প্রচুর পরিমাণ ফুচকা চটপটি বিক্রি হবে। এতে করে প্রতি সপ্তাহে ভালো পরিমাণ টাকা ইনকাম হবে। 

সবজির দোকান করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

বিভিন্ন রকম ভিটামিন রয়েছে এই সবুজ শাক সবজির মধ্যে সে জন্য মানুষজন সবুজ শাকসবজি খেতে বেশি পছন্দ করে থাকে। তাই আপনি চাইলে সবজির দোকান করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা অনায়াসে আয় করতে পারবেন। 

আরো পড়ুন: অনলাইন থেকে আনলিমিটেড টাকা ইনকাম করার সহজ ৮ টি উপায়

এজন্য আপনাকে প্রথমে কিছু টাকা নিয়ে ভালো ভালো শাক সবজি কিনতে হবে তারপরে সেগুলো কিছুটা লাভ করে বিক্রয় করতে হবে। আপনার এলাকায় যদি সবজির চাহিদা বেশি থাকে তাহলে সবজির দোকান করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা বা তার আশেপাশে ভালো পরিমাণ  আয় করতে পারবেন। 

ফলের দোকান করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

বিভিন্ন রকম পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ ফল আমরা সবাই খেয়ে থাকি। তাই বাজারে ফলের চাহিদা অনেক বেশি থাকে। তাই আপনার কাছে যদি কিছু পরিমাণ পুঁজি থাকে তাহলে ফলের দোকান করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা বা তার আশেপাশে ভালো পরিমাণ  আয় করতে পারবেন। তবে ফলের দোকান করে আয় করার জন্য এ বিষয়ে অনেক কিছু জানতে হবে। 

যেমন ভালো ফল চিনতে এবং কম টাকা দিয়ে কোথায় কিনতে পাওয়া যায় এগুলো তথ্য জানতে হবে।তারপর সেখান থেকে কম টাকা দিয়ে ভালো মানের বিভিন্ন রকম ফল ক্রয় করে কিছু পরিমাণ লাভ দিয়ে বিক্রয় করতে হবে। আর এভাবেই প্রতি সপ্তাহে ভালো পরিমাণ টাকা আয় করতে পারবেন। 

খেলাধুলার সামগ্রী বিক্রয় করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

বর্তমানে আমরা খেলাধুলা করতে অনেক পছন্দ করে থাকি সেজন্য বিভিন্ন রকম খেলাধুলার সামগ্রী কেনার প্রয়োজন হয়। তাই তাই আপনি যদি খেলাধুলার সামগ্রীর দোকান দিতে পারেন তাহলে খেলাধুলার সামগ্রী বিক্রয় করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা বা তার আশেপাশে ভালো পরিমাণ  আয় করতে পারবেন। 

তবে খেলাধুলার জিনিসপত্র বিক্রি করে টাকা আয় করার জন্য প্রথমে আপনার কাছে কিছু টাকা থাকতে হবে এবং সেগুলো টাকা দিয়ে বিভিন্ন রকম খেলাধুলার জিনিসপত্র কিনতে হবে এবং একটি ছোট্ট দোকানে সেগুলো রাখতে হবে সেগুলো যখন আস্তে আস্তে বিক্রি হবে এবং লাভ আসবে সেখান থেকে ব্যবসা আর একটু বড় করতে হবে এভাবে এক সময় ভালো পরিমান টাকা আয় করা যাবে। 

বাড়ির আশেপাশে বিভিন্ন রকম ফসল উৎপন্ন করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন

আপনার বাড়ির আশেপাশে যদি ফাঁকা কোন জায়গা বা জমি থাকে তাহলে সেগুলো জায়গা জমিতে বিভিন্ন রকম ফসল উৎপন্ন করে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন। অনেকের বাড়ির আশেপাশে ফাঁকা জায়গায় নিতে পড়ে থাকে সেগুলো জায়গা ফেলে না রেখে বিভিন্ন রকম শাকসবজি এবং মসলা উৎপন্ন করতে পারেন। 

যেমন আদা রসুন পেঁয়াজ মরিচ এগুলো সহ অনেক শাকসবজি রয়েছে সবকিছুই উৎপন্ন করতে পারেন। এবং সেগুলো প্রতি সপ্তাহে বাজারে বিক্রি করতে পারবেন। সেখান থেকে অনেক ভালো পরিমাণ টাকা আসার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই আপনি চাইলে এবং আপনার বাড়ির আশেপাশে ফাঁকা জায়গা বা জমি থাকলে এগুলো করে দেখতে পারেন। 

টাকা আয় নিয়ে প্রায়শই জিজ্ঞাসিত কিছু প্রশ্ন ও উত্তর | FAQs

প্রশ্ন: কিভাবে ঘরে বসে টাকা আয় করা যায়? 

উত্তর : ঘরে বসে বিভিন্ন কাজ করে টাকা আয় করতে পারবেন যেমন ওয়েবসাইট তৈরি করে আয় করতে পারবেন, আর্টিকেল লিখে আয় করতে পারবেন, ইউটিউব থেকে আয়, ফেসবুক থেকে আয়, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করতে পারবেন এছাড়া ইত্যাদি আরো কাজ করে আয় করতে পারবেন।

প্রশ্ন: ইন্টারনেটে আয় করার পদ্ধতিকে কি বলে?

উত্তর: ইন্টারনেটে আয় করার পদ্ধতিকে অনলাইন ইনকাম বা অনলাইন আয় বলে।

প্রশ্ন: কনটেন্ট রাইটিং করে কত টাকা আয় করা যায়?

উত্তর : ইংলিশ কনটেন্ট রাইটিং করে মাসে ৫০ হাজার এর বেশি টাকা আয় করা যাবে।  বাংলা কনটেন্ট রাইটিং করে মাসে ১০ থেকে ২০ হাজার টাকা আয় করা যায়।

প্রশ্ন: ইউটিউব চ্যানেল থেকে কিভাবে আয় করা যায়?

উত্তর : ইউটিউব চ্যানেল থেকে অনেক উপায়ে আয় করা যায় যেমন ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন করে আয়, ইউটিউব চ্যানেল দিয়ে অন্য কারো বিজনেস প্রোমোশন করে দেওয়ার মাধ্যমে আয়। 

প্রশ্ন: ফেসবুক থেকে কি আয় করা যায়? 

উত্তর : হ্যা ফেসবুক থেকে বিভিন্ন উপায়ে টাকা আয় করা যায় যেমন: ভিডিও তৈরি করে আয়, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয়, নিজের পণ্য বিক্রয় করে আয়, বিভিন্ন সার্ভিস দিয়ে আয়। 

আমাদের শেষ কথা 

প্রিয় বন্ধুরা আশা করছি আজকের পোস্ট থেকে প্রতি সপ্তাহে 4000 টাকা পর্যন্ত আয় করুন ২০ টি সহজ কাজ করে এই বিষয়ে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। তারপরেও এই বিষয়ে যদি আরো কিছু জানাতে চান তাহলে আপনার প্রশ্নটি কমেন্টে লিখুন। আমরা আপনাকে সঠিক উত্তর দিবো ইনশাআল্লাহ। আজকের মতো এখানেই শেষ করছি সবাই ভালো থাকবেন।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন